মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বিভাগের পটভূমি

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের ১৬টি জেলা নিয়ে রাজশাহী বিভাগের কার্যক্রম চলমান ছিল। রাজশাহী বিভাগের সদর দপ্তর  এর অবস্থান ছিলো বিভাগের সর্ব দক্ষিণে যারফলে উত্তরাঞ্চলের ৮টি জেলায় সার্বিক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন দুরূহ হয়।ফলে উক্ত উত্তরাঞ্চলের জেলা সমূহের  সার্বিক উন্নয়নের বিষয়টি অনুধাবন করে রংপুর প্রশাসনিক বিভাগ স্থাপন করা হয়।

মাননীয়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিপ্রায় অনুযায়ী তাঁর সভাপতিত্বে ২৫ জানুয়ারী ২০১০ইং তারিখে অনুষ্ঠিত নিকার সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাজশাহী বিভাগকে বিভক্ত করে গত ৯মার্চ ২০১০ইং তারিখে বৃহত্তর রংপুর দিনাজপুর অঞ্চলের ৮টি জেলা (রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী , গাইবান্ধা,  লালমনিরহাট, ঠাকুরগাও, কুড়িগ্রাম ও পঞ্চগড় ) নিয়ে রংপুর বিভাগ সৃজন সংক্রান্ত সরকারী প্রজ্ঞাপন জারী হয়।

বর্তমান গণতাস্ত্রিক সরকারের ঘোষিত ‘রূপকল্প ২০২১‌‌’ এর কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে স্বল্প, মাধ্যম ও দীর্ঘ মেয়াদী কতিপয় সরকারি কর্মসূচীকে অগ্রাধিকার দিয়ে বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন বিভিন্ন কর্ম পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ডিজিটাইজেশন কর্মসূচী গ্রহণ। তরূণ প্রজন্মকে ডিজিটাইজেশন কর্মসূচীতে সম্পৃক্ত করা অন্যতম লক্ষ্য। কারণ তারা অধিকতর উদ্যোগী ও বৃদ্ধিদীপ্ত। অন্যান্য অগ্রাধিকার কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে মানসম্মত শিক্ষার প্রসার ও বিকাশ সাধন করে মানব সম্পদের উন্নয়ন, জনগণের দোরগড়ায় সেবা পৌছে দেয়া ও দুর্নীতি প্রতিরোধ। তাছাড়া বৈশিক আবহাওয়ার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে খাদ্য নিরাপত্তা বেষ্টনী বৃদ্ধি, বন্যা বাধ ও সেচ ব্যবস্থার মাধ্যমে কৃষি ও পল্লী উন্নয়ন , পরিবার কল্যাণ সাধন, স্বাস্থ্য ও প্রজনন সেবা প্রদান, দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণ সাধন, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিসৌধ নির্মাণ, দেশজ সংস্কৃতি বিকাশ, যুব ও ক্রীড়া উন্নয়ন, রেলওয়ে অবকাঠামো নির্মাণ ও সংস্কার, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ, নারীর ক্ষমতায়ন ও শিশু কল্যাণ ইত্যাদি।

বিভাগীয় প্রশাসন আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সে লক্ষ্যে ইভটিজিং প্রতিরোধসহ বিভিন্ন অপরাধসমূহ প্রতিরোধে মোবাইল কোর্টসমূহ ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ দমন ও ১৯৭১ এর মানবতাবিরোধী এবং যুদ্ধ অপরাধীদের বিচার কার্যক্রমে বিভাগীয় প্রশাসন প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদানে আন্তরিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাছাড়া জনগণের দোরগড়ায় ডিজিটাইজেশন কর্মসূচীর মাধ্যমে ই- সেবাসমূহ পৌছে দেয়া অন্যতম প্রাধিকার কর্মসূচী।

মোট ১৬,৩২০ বর্গ কিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট এবং প্রায় ১,৩৮,৪৭,০০০ লোকসংখ্যা নিয়ে রংপুর বিভাগ গঠিত। মোট সংসদীয় নির্বাচনী এলাকা ৩৩ টি, উপজেলার সংখ্যা ৫৮ টি, ইউনিয়নের সংখ্যা ৫৩৪ টি, বিভাগের শিক্ষার হার ৫৬%। গত একযুগ দেশের দারিদ্র নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিল মঙ্গাপ্রবণ এলাকা হিসেবে পরিচিত দেশের উত্তরাঞ্চলের এ জনপদ। ক্রমানয়ে দৃশ্যপট পাল্টে দেয়ার লক্ষ্যে রংপুর বিভাগীয় প্রশাসন আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে ।


Share with :

Facebook Twitter